প্রেম https://banglagolpokobita.com/wp-content/uploads/2015/02/affair.jpg

যেদিন তুমি ধরেছিলে হাত, কেঁদেছিলে কোন সুখে
চোখের ভাষায় বুঝিয়েছিলে সব, এসেছিলো যা মুখে-
গভীর সুখে রেখেছিলে মাথা আমার ব্যথার বুকে
ভেবেছিনু হায়, এই বুঝি প্রেম, মরিব দুজন ধুকে।
কোথাকার নদী কোথায় মিশেছে, সাগরে মুক্তি তার
তব মুখখানি না দেখিলে মোর হইতো হ্রদয় ভার-
সেই চিঠি পেয়ে ছুটে আসিতে আমার বক্ষ দ্বার
ভেবেছিনু হায়, এই বুঝি প্রেম, কাঙালের কারবার।
চোখ ভাসায়ে কাঁদিতে তুমি, যত দুঃখে আমার
তোমারে হাসায়ে ধরেছি যে সুখ, হয়েছে কবে কার-
হারাতে চেয়েছি যে ওপারের দেশে, পৃথিবী যে কোন ছার
ভেবেছিনু হায়, এই বুঝি প্রেম; সাধ জাগে মরিবার।
হেটেছি কত দুরের পথ দুজনে ধরিয়া হাত
চোখের পরে চোখ রেখে যে, কেটেছে কতনা রাত-
ভেবেছি এভাবে যাক যুগ যুগ, এভাবে আসুক নিপাত
ভেবেছিনু হায়, এই বুঝি প্রেম; সুখেরই ঝঞ্ঝাপাত।
সব নদী হায় বয়ে বয়ে যায়,তবু কভু হয় ক্ষয়
তেমনি করিয়া ছাড়িয়া গিয়েছো, শুন্য করে হ্রদয়-
দু’হাত শুধু শুন্যে তুলেছি আনবো তোমারে ফিরায়
ভেবেছিনু হায়, এই বুঝি প্রেম; হ্রদয়ের দুঃসময়।
আমারে লুকায়ে যাবে কতদুর, দেখা যে হবে আবার
আমি যে কোথাও আবার হারাবো চোখে চোখ রেখে তোমার-
আসিতেছি আমি তোমার কাছে, খুলে রাখো তব দ্বার
বুঝেছিযে হায় এরে কয় প্রেম, ‘আশা, পুনঃমিলিবার’।

SHARE

1 1 Comment

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.